1. bdfocas24@gmail.com : newsroom :
  2. arifahok27@gmail.com : Alifa hok : Alifa hok
  3. newsgopalpur@gmail.com : Rokon zzaman : Rokon zzaman
  4. akmpalash75@gmail.com : Shamsuzzoha Palash : Shamsuzzoha Palash
গাংনীতে জোর পুর্বক দখল নিতে পুলিশের সহযোগিতায় ভাংচুর : বিচারের আশায় মালিক দ্বারে দ্বারে - www.bdfocas24.com
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
চুয়াডাঙ্গায় একদিনে ছয় ওসির রদবদল পলাশবাড়ীর কিশোরগাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান রিন্টুসহ ৬ জুয়াড়িকে আটক করেছে পুলিশ পলাশবাড়ীতে সড়কের পাশে ড্রেন নির্মাণে বৈষম্যের স্বীকার হয়ে অর্ধশতাধিক ব্যবসায়ী নিঃস্ব জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীর সাথে সৌজন্যে সাক্ষাৎ করলেন মেহেরপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোমিনুল ইসলাম পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামের নির্দেশে অচল বৃদ্ধের বয়স্ক ভাতার টাকা উদ্ধার পুলিশ সুপারের মধ্যস্থতায় অবুঝ শিশুকন্যা নুসরাত ফিরে পেলো তার বাবা-মাকে রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পুরস্কারের জন্য তামাক কোম্পানিকে অযোগ্য ঘোষণা সাংবাদিক সোহেল রানা ডালিমের উপর সন্ত্রাসী হামলা, দর্শনা প্রেসক্লাবে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত মেহেরপুর বারাদীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত পরিমণি : চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত

গাংনীতে জোর পুর্বক দখল নিতে পুলিশের সহযোগিতায় ভাংচুর : বিচারের আশায় মালিক দ্বারে দ্বারে

এসআই বাবু, বারাদী(মেহেরপুর) প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম: রবিবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২১
  • ৬০ বার দেখা

মেহেরপুরের গাংনীতে রেকর্ডকৃত বৈধ মালিকানা জমি রাজনৈতিক প্রভাব দেখিয়ে জবরদখলের পায়তারা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে উপজেলার চেংগাড়া গ্রামে প্রতিপক্ষ মৃত রফিজউদ্দীনের ছেলে মোমিন, বারেক, খলিল, দুলাল গং একই গ্রামের মৃত করিমন নেছার ছেলে তোফাজ্জেল হোসেনএর রেকর্ডকৃত জমি জবর দখলের পায়তারা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন জমির মালিক তোফাজ্জেল হোসেন।

এসব ব্যক্তিবর্গ কোন রকম কাগজপত্র না থাকলেও রাস্তার দাবিতে জমি জবর দখলের পায়তারা চালাচ্ছে। প্রতিপক্ষ মৃত রফিজউদ্দীনের ছেলে মোমিন, বারেক, খলিল, দুলাল গং মুন্সেফ আইন অমান্য করে লোকজন নিয়ে জমি জবরদখল করার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। এই বিরোধ পূর্ণ জমি নিয়ে দেওয়ানী আদালতে মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চেংগাড়া গ্রামে সরেজমিনে ঘুরে জানা গেছে, উপজেলার চেংগাড়া মৌজার জেএল নং-৬২ অন্তর্গত আর,এস খতিয়ান নং-২৮০, দাগ নং-৮৮১জমির পরিমান ১৪ শতাংশ নালিশী জমি। মালিকানা সূত্রে জমি যথারীতি তোফাজ্জেল হোসেন ভোগদখল করে আসছিলেন, জমিতে খড়ির ঘর , তামাক ঘর ও বিভিন্ন প্রকার গাছ পালা রয়েছে।
জমির মালিক তোফাজ্জেল হোসেন জানান, ১৯৪৭ সালে ফর্দিমূলে আমার মা উক্ত খতিয়ানের ৮৮১ দাগের ১৪ শতক জমি করিমন নেছার নামে বন্দোবস্ত প্রাপ্ত হয়। উক্ত জমি এস এ রেকর্ড ও আর এস রেকর্ড সম্পন্ন হয়েছে। রেকর্ড মূলে পৃথক হোল্ডিং ,খারিজ ও খাজনা চলমান রয়েছে।

এখানে উল্লেখ্য, জমির শ্রেণিতে ডহর লেখা থাকলেও সরকার বা ভুমি অফিস রেকর্ডের সময় শ্রেণি বদল না করে মালিককে বন্দোবস্ত দেয়। বর্তমানে এটি কোন খাস খতিয়ানের জমি নয়। সেকারনে ডহর উল্লেখ থাকলেও জমি মালিকানা সত্বে বহাল রয়েছে।বর্তমানে রাজনৈতিক ংনেতাদের চাপে থানা পুলিশের একটি দল আমার বাড়িতে এসে আমার ঘরবাড়ি ভেঙ্গে দিয়েছে। উচ্ছেদের হুমকি দিচ্ছে। বৈধ কাগজ পত্র থাকলেও আমি পুলিশের ভয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছি।

জমি নিয়ে প্রতিপক্ষ মোমিন জানান, আমরা দীর্ঘ ৫০-৬০ বছর যাবৎ পরিবার পরিজন নিয়ে এখানে বসবাস করে আসছি। আমরা জানতাম আমাদের বাড়ি থেকে গ্রামের প্রধান রাস্তায় উঠতে যে পথটি ব্যবহার করতাম সেটি যে রেকর্ড হয়েছে তা আমাদের হজানা নেই। আমরা রেকর্ড বাতিলের জন্য মুন্সেফে মামলা করেছি। বর্তমানে আমাদের রাস্তা বন্ধ করে রেখেছে।আমরা ৮/১০ ঘর পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছি।

এব্যাপারে গাংনী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নূর ই আলম সিদ্দিকী জানান, বিষয়টি নিয়ে আমরা কাগজ পত্র দেখেছি। তোফাজ্জেল হোসেনের নামে ২ টি রেকর্ড রয়েছে। হোল্ডিং, খারিজ খাজনা চলমান তাছাড়া জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলমান তাই আমরা এক্ষেত্রে কিছুই করতে পারবো না। আমরা কাগজপত্র মুন্সেফ আদালতে প্রেরণ করেছি।আদালতের সিদ্ধান্ত ছাড়া কিছুই বলা যাবে না। তার বৈধ জমি থেকে উচ্ছেদ বা জবরদখল করাটাও ঠিক হবে না।

এব্যাপারে গাংনী থানার ওসি তদন্ত সাজেদুল ইসলাম জানান, চেংগাড়া গ্রামের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।শৃ্খংলা রক্ষায় আমরা পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া এক্ষণে সম্ভব না। জমি জমা সংক্রান্ত বিষয়টি আদালতের।উভয়পক্ষকে নিয়ে সমস্যাটার একটা সুরাহা করার উদ্যোগ নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত |গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।

সাইট ডিজাইন এস.এম.সাগর-01867-010788