1. bdfocas24@gmail.com : newsroom :
  2. arifahok27@gmail.com : Alifa hok : Alifa hok
  3. newsgopalpur@gmail.com : Rokon zzaman : Rokon zzaman
  4. akmpalash75@gmail.com : Shamsuzzoha Palash : Shamsuzzoha Palash
ধান ও বিচালির দাম বেশি হওয়ায় চুয়াডাঙ্গায় বোরো আবাদ বাড়ছে - www.bdfocas24.com
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১১:৪৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
পেগাসাস আছে বলে মানুষ রাতে নিশ্চিন্তে ঘুমোতে পারে : ইজরায়েলি সংস্থা NSO নেশাগ্রস্থ সন্তানের হাতে মা খুন : র‍্যাব ১৩’র হাতে হত্যাকারী মাদকাসক্ত ছেলে গ্রেফতার দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা বাজারে সরকারি খাস জমিতে অবৈধভাবে দোকানঘর নির্মাণ : ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান দামুড়হুদায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা ও স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ দামুড়হুদায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১৬ টি মামলায় ২৮ জনকে অর্থদন্ড নরসিংদী জেলা যুবলীগের নেতৃত্বে কলকাতার মিথুন সাহা ! সেনাবাহিনীর সহযোগীতায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে ভিজিএফ এর চাল বিতরন করলেন পৌর মেয়র বিপ্লব নোয়াখালীর হাতিয়ায় হত্যাসহ ২৪ মামলার আসামি গ্রেফতার সেন্ট্রাল অক্সিজেন সিস্টেম, আইসিইউ, পিসিআর ল্যাব স্থাপনের দাবিতে গাইবান্ধায় নাগরিক মঞ্চের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত করোনা : রোগীদের চিকিৎসা দিতে যেয়ে নিজেই আক্রান্ত হলেন, ডাঃ শুভ

ধান ও বিচালির দাম বেশি হওয়ায় চুয়াডাঙ্গায় বোরো আবাদ বাড়ছে

এম, আই মিরাজ :
  • আপডেট টাইম: শুক্রবার, ৮ জানুয়ারি, ২০২১
  • ২৩৩ বার দেখা

চুয়াডাঙ্গা জেলার মাঠে মাঠে চলছে বোরো রোপণ ও জমি তৈরির প্রস্তুতি। এ মওসুমে এবার সমকালীন পদ্ধতিতে এ জেলার চাষিরা বোরো রোপণ করছে। চলতি মওসুমে জেলায় বোরো চাষ লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে ৩১৭২৫হেঃ জমিতে।

 

চুয়াডাঙ্গা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, চলতি বোরো চাষ মওসুমে জেলায় ৩১৭২৫হেঃ জমিতে আবাদের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে। এ বছর জেলায় সর্বচ্চ বীজ তলা তৈরি হয়েছে ১৯৭৪হেঃ জমিতে। এর মধ্যে ২৮০ হেঃ জমিতে হাইব্রিড জাতের বীজ তলা তৈরি হয়েছে। উচ্চ ফলনশীল জাতের ধান বেশি হয়ে থাকে।

 

আমন মওসুমে ধানের ফলন বেশ ভালো, ধান ও বিচালির দাম বেশি হওয়ায় চাষিরা বেশ উৎসবমুখর পরিবেশে বোরো চাষ করছে। বোরো আবাদ করার আগেই কৃষি যন্ত্রপাতি মেরামত করে রেখেছে চাষিরা। এ দিকে সার ও তেল হাতের কাছে পাওয়ায় চাষিরা বেশ ভালোভাবেই জমিতে সেচ ও সার দিতে পারবে।

 

এ জেলায় বিদ্যুৎ চালিত গভীর ও অগভীর নলকুপ রয়েছে। বিদ্যুৎ চালিত সেচ যন্ত্রে চাষিরা বেশ কম খরচে চাষ করতে পারবে। এ মওসুমে ১৫০ হেঃ জমিতে সমকালীন পদ্ধতিতে কৃষি বিভাগের সহযোগিতায় বোরো রোপণ করছে চাষিরা। আগে ভাগেই চাষিরা বীজতলা ভালোভাবে তৈরি করে রেখেছে। লাগানোর উপযোগী করে তারা জমিতে রোপণ করছে। শীতে বীজতলার ক্ষতি না হওয়ায় চাষিরা বেশ স্বস্তিতে রয়েছে। ভালো ভাবে যাতে চাষিরা ধান রোপণ করতে পারে সেই সাথে ভাল ফলন পেতে পারে তার জন্য কৃষি বিভাগ চাষিদের পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে।

 

চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা ও দামুড়হুদা উপজেলায় বোরো আবাদ বেশি হয়ে থাকে। কৃষি বিভাগ আশা করছে এ মওসুমে ও লক্ষমাত্রা অতিক্রম করবে।

 

দামুড়হুদা উপজেলার কুড়ুলগাছি আর্দশ সমবায় সমিতির ১১টি গভীর নলকুপ রয়েছে। ওই গভীর নলকুপ গুলো প্রতিবছর চাষিদের সেচ সুবিধা দিয়ে থাকে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত জেলায় ৮৯০ হেঃ জমিতে বোরো রোপণ করা হয়েছে।

 

চুয়াডাঙ্গা জেলা কৃষিসস্প্রসারণ অধিদফতরের প্রশিক্ষণ অফিসার সুফি মো রফিকুজ্জামান বলেন, বোরো মওসুমে সমকালীন পদ্ধতিতে ধান রোপণ করা হবে। এই পদ্ধতিতে চাষ করলে চাষিরা কম সময়ে ভালো ফলন ও লাভবান। এছাড়া চাষিরা মাঠে মাঠে ধান রোপণ শুরু করেছে। কৃষি বিভাগ চাষিদের ধান রোপণে সহযোগিতা করে যাচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত |গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।

সাইট ডিজাইন এস.এম.সাগর-01867-010788